অনলাইনে নির্বাচনী বিদ্বেষ, ভারতে সতর্কতা

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ভারতে নির্বাচনকে সামনে রেখে অনলাইনে চলছে ব্যাপক প্রচারণা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে দলীয় কর্মকাণ্ডের পাশাপাশি চলছে নিজেদের দলের প্রার্থীদের প্রশংসা ও রোডম্যাপসহ নানা পোস্ট। তবে এর সঙ্গে প্রতিপক্ষের রাজনৈতিক দল ও তাদের প্রার্থীদের ব্যাপারে বিদ্বেষ ছড়ানোর প্রতিযোগিতাও চলছে সমান তালে।

এ ব্যাপারে সতর্ক করেছে ভারতের নির্বাচন কমিশন (ইসি)। অভিযোগ মূলত কংগ্রেস ও বিজেপিকে ঘিরেই। সংগঠন দুটি একে অপরের বিরুদ্ধে বিভিন্ন বিদ্বেষমূলক প্রচারণায় শরিক হচ্ছে। আগামী বছর নির্বাচনকে সামনে রেখে কিছু পদক্ষেপও নিয়েছে ইসি।

ফেইসবুক ও টুইটারের মতো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কিংবা কোনো অনলাইন প্লাটফর্মের মাধ্যমে যেনো কেউ কটুক্তি বা বিদ্বেষ ছড়াতে না পারে, সে জন্য কড়া নির্দেশ জারি করেছে। প্রতিষ্ঠানগুলোর কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক বৈঠকে এসব মাধ্যমের কনটেন্ট মনিটরিং করতে বলা হয়েছে যাতে নির্বাচন আচরণবিধি লঙ্ঘিত না হয়।

social_media_india

গত সপ্তাহে এ বিষয়ে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে ইসির পক্ষ থেকে নির্বাচনী পরিবেশ ক্ষুণ্ন করতে পারতে পারে এমন কিছু যাতে সামাজিক সাইটগুলোকে প্রকাশিত ও প্রচারিত না হয় সেজন্য উপায় খুঁজে বের করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এমন কিছু পোস্ট করা হলেও তা যাতে দ্রুত সরিয়ে ফেলা যায় সেটির উপায়ও বের করতে এসব জনপ্রিয় মাধ্যমগুলোর কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এমনকি নির্বাচন সংশ্লিষ্ট বিজ্ঞাপন প্রচারেও বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে ইসির একজন কর্মকর্তা জানান, অনলাইন প্লাটফর্মের সাইটগুলোর অধিংকাংশই যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক। তাই এসব সাইটের কনটেন্ট মনিটর বা ট্র্যাক করা কঠিন। তবে ইন্টারনেট সেবাদাতাদের মাধ্যমে এ ধরনের অপরাধ দমনের ব্যাপারটিও উল্লেখ করা হয় প্রতিবেদনে। ১৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত ওই সভায় ইসি এসব বিষয়ে সামাজিক মাধ্যমগুলোর সহযোগিতা চেয়েছে।

টাইমস অব ইন্ডিয়া অবলম্বনে তারেক হাবিব

Related posts

*

*

Top