সামাজিক সাইট ম্যানেজ করবে গুগলের সফটওয়্যার

তুসিন আহমেদ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো এখন বেশ জনপ্রিয়। দৈনন্দিন হাজারো ব্যস্ততার মধ্যেও বিভিন্ন নেটওয়ার্কে সরব উপস্থিতি থাকছে সবার। ব্যক্তিগত ছাড়াও বাণিজ্যিক ব্যবহারও বাড়ছে এসব মাধ্যমের। এ কারণে অনেকেরই নিয়মিত চোখ রাখতে হয় সাইটগুলোতে। কাজের ভিড়ে হয়ত সে সময় পাচ্ছেন না। টেক জায়ান্ট গুগলের নতুন একটি প্রজেক্ট সফল হলে ব্যবহারকারীদের আর এ নিয়ে চিন্তা করতে হবে না।

প্রশ্ন হলো গুগল এ জন্য কি করতে যাচ্ছে? শীর্ষ সার্চ ইঞ্জিন কোম্পানিটি ব্যবহারকারীদের সহায়তার উপায় খুঁজে পেয়েছে। ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবস্থাপনায় রোবটের সহায়তার বিষয়ে পেটেন্টের আবেদন করেছে। বিস্ময় জাগানো এ উদ্যোগ বাস্তবায়ন করতে একটি সফটওয়্যার তৈরির পেটেন্টের পরিকল্পনার কথা জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। এমন এক সফটওয়্যার যা ব্যবহারকারীর অনুপস্থিতিতে  বিভিন্ন নেটওয়ার্কে এক্টটিভিটি বজায় রাখবে।

google_techshohor

গুগলের ভাবনায় রয়েছে এমন সফটওয়্যার যা আস্তে আস্তে ব্যবহারকারী কিভাবে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অংশ নেয় তা শিখেতে পারবে। এতে যাদের পক্ষে সামাজিক সাইটগুলোতে সময় দেওয়া কিংবা নিয়মিত যোগাযোগ রক্ষা করা সম্ভব হয় না, তাদের হয়ে এ কাজ করবে সফটওয়্যারটি। এমনকি যারা কোনো গুরুত্বপূর্ন মেসেজের উওর দিতে পারেন না সময়ের অভাবে তাদের সহায়তা করবে এটি।
বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এ সমস্যার সমাধানে গুগল কাজ করছে। সফটওয়্যারটি ব্যবহারকারীর স্বাভাবিক এক্টটিভিটি অনুসরণ করে আপডেট দিতে পারবে, বন্ধু ও আত্মীয়দের বার্তার জবাব দেবে এবং দৈনন্দিন ডেটা বাছাইয়ে সহায়তা করবে।

এ বিষয়ে গুগলের সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার আশিষ ভাটিয়া পেটেন্ট আবেদনে উল্লেখ করেছেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এবং ইলেকট্রনিক মাধ্যমে যোগাযোগ দিন দিন জনপ্রিয় হচ্ছে। সামাজিক যোগাযোগ সাইটগুলোতে ব্যবহারকারীদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখা এবং বার্তা পাঠানো অনেকটা কঠিন হয়ে পড়ছে অনেক ব্যবহারকারীদের জন্য। এ বিষয়টাকে মাথায় রেখেই এ সফটওয়্যারের পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

ভাটিয়া জানান,  সফটওয়্যারটি সম্পূর্ন সয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে সকল সামাজিক মাধ্যম থেকে তথ্য সংগ্রহ করবে। কেউ রেজিস্টেশন করলে তাদের সকল তথ্য সংগ্রহ করা হবে। ব্যবহারকারীর বার্তা, স্ট্যাটাস পরিবর্তন, ভিডিও ও ছবি পরিবর্তন, নোট ইত্যাদি বিষয়গুলোর তথ্য সংরক্ষণ করবে। এসব তথ্য বিশ্লেষণ করে সফটওয়্যাটি একটি উপযুক্ত বার্তা সুপারিশ করতে সক্ষম হবে।
‘লাইক’ অথবা  ফরওয়ার্ড বাটনের ক্লিক করলে স্বতন্ত্রভাবে কিছু বার্তা সাজেশেন করবে সফটওয়্যারটি। যার ফলে ব্যবহারকারী জন্য আরও সহজ হবে বার্তা পাঠানো।

লিংক্লন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর শন লসন  বলেন, এর মাধ্যমে  সয়ংক্রিয়ভাবে বন্ধু এবং ফলোয়াদের সাথে যুক্ত থাকা যাবে।

তবে এ ধরনের  সফটওয়্যার কবে আসবে সেই সর্ম্পকে বিস্তারিত কোনো তথ্য প্রকাশ করেনি গুগল।

বিবিসির প্রতিবেদন থেকে

Related posts

*

*

Top