গুগল ম্যাপস থেকে শিশুর মরদেহের ছবি সরানো হচ্ছে

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : গুগল ম্যাপে ক্যালিফোর্নিয়ার রিচমন্ড এলাকার মানচিত্রে দেখা যায় রেললাইনের পাশে একটি মৃতদেহ পড়ে আছে। এর চারপাশে পুলিশের গাড়ি এবং কিছু পুলিশের কর্মকর্তাকে ব্যস্ত থাকতে দেখা যায়। কৃত্রিম উপগ্রহের মাধ্যমে ছবিটি তোলা হয়েছিল ১৫ আগস্ট ২০০৯ সালে। তখন থেকে এটি গুগল ম্যাপে দেখানো হচ্ছে। মানচিত্রে পড়ে থাকা মৃতদেহটি কেভিন বেরারা নামে ১৪ বছরের এক শিশুর বলে রিচমন্ড পুলিশ নিশ্চিত করে।

গুগল ম্যাপে রিচমন্ড এলাকার সার্চ দিলে দীর্ঘদিন থেকে মানচিত্রে এ ছবিটি দেখা যেত। তবে শিশুটির পিতার অনুরোধে মরদেহের ছবিটি সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে টেক জায়ান্টটি। ইতোমধ্যে ছবিটি মুছে ফেলে নতুন ম্যাপ প্রতিস্থাপনের প্রক্রিয়া শুরু করেছে গুগল ম্যাপস কর্তৃপক্ষ। যদিও গুগল সাধারণত স্যাটেলাইটের মাধ্যমে তোলা ছবি পরিবর্তন করে না।

google-maps deadbody_techshohor

কেভিনকে চার বছর আগে হত্যা করা হয়। শীর্ষ সার্চ ইঞ্জিন এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে অনেকে বলেছেন, এটি একটি অসাধারন অনুশীলন।

গুগল গত সোমবার জানায়, ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্যের রিচমন্ড শহরের বাসিন্দা জোস বেরারা নামের এক ব্যক্তি তার নিহত ছেলের ছবি গুগল ম্যাপসে খুঁজে পান। তার অনুরোধে সম্মতি দিয়ে গুগল নতুন স্যাটেলাইট ছবি নিয়ে বর্তমান ছবিটি বদলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। গুগল জানিয়েছে, পুরো প্রক্রিয়া শেষ করে আগামী আট দিনের মধ্যে এটি পরিবর্তন করা হবে।

গুগলের ভাইস প্রেসিডেন্ট ব্রায়ান ম্যাককেডন বলেন, ‘পূর্বে কখনও কৃত্রিম উপগ্রহ থেকে তোলা কোনো ছবি গুগল ম্যাপে পরিবর্তন করা হয়নি। কিন্তু এ ক্ষেত্রে ব্যতিক্রমী সিদান্ত নেওয়া হযেছে।’

ক্যালিফোর্নিয়ার সংবাদ মাধ্যম ‘কেটিভিউ’ সর্বপ্রথম এ বিষয়ে সংবাদ প্রচার করে। এতে নিহত শিশুর পিতা ছবিটি সর্ম্পকে জানতে পারেন গত সপ্তাহে। তিনি গুগলকে মৃত্ সন্তানের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করে ছবিটি সরিয়ে ফেলতে অনুরোধ করেন। এ বিষয়ে শিশুর পিতা জোস বেরারা কেটিভিউতে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘যখন আমি ছবিটি দেখি তখন মনে হয় এ ঘটনাটি যেন গতকাল ঘটেছে। এটি আমাকে পুরানো  স্মৃতির  কাছে নিয়ে যায়।’

রিচমন্ডের পুলিশ বলেন, হত্যাকান্ডের মামলাটি এখনও বিচারাধীন। তদন্তকারীরা নতুন কোনো তথ্য খুঁজে পায়নি কেন এটি ঘটেছে।

ব্যবহারকারীরা সাধারণত গুগল ম্যাপসে মানচিত্র দেখতে পেলেও তাঁরা আর্থ ভিউ অন করার মাধ্যমে স্যাটেলাইট থেকে তোলা ছবিও দেখতে পারেন। এর আগে নানা বিষয়ে বিভিন্ন দেশে গুগল ম্যাপস নিয়ে অনেকবার বিতর্ক ও আইনি ঝামেলা পোহাতে হয়েছে গুগলকে।

গুগল জানিয়েছে, স্ট্রিটভিউতে তোলা ছবি (যেগুলো গাড়ির উপর বসানো ক্যামেরা থেকে তোলা হয়) প্রায়ই অভিযোগের প্রেক্ষিতে বদলানো হলেও সাধারণত স্যাটেলাইট থেকে তোলা ছবি বদলানো হয় না।

Related posts

*

*

Top