Maintance

আগস্টে বাণিজ্যিক কার্যক্রমে যাবে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট

প্রকাশঃ ৯:২৩ অপরাহ্ন, এপ্রিল ৪, ২০১৮ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১১:০৮ পূর্বাহ্ন, এপ্রিল ৫, ২০১৮

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের বাণিজ্যিক কার্যক্রম আগামী আগস্ট মাস থেকে শুরু হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ।

বুধবার টেলিকম রিপোর্টারদের সংগঠন টেলিকম রিপোর্টার নেটওয়ার্ক বাংলাদেশের (টিআরএনবি) নবনির্বাচিত কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যরা সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। সেখানেই বিটিআরসি চেয়ারম্যান এমন কথা জানান।

তিনি বলেন, চলতি মাসের শেষ দিকে (এখনো তারিখ নিশ্চিত হয়নি) বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট মহাকাশে পাঠানোর কথা রয়েছে। যদি স্যাটেলাইট মাহকাশে যায় তবে তার পর আরো দেড় থেকে দুই মাস লাগবে এর টিউনিং করতে।

শাহজাহান মাহমুদ বলেন, টিউনিংয়ের পরেই এটি বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহারের উপযোগী হবে। আর এটা করতে আগস্ট মাস পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

Satellite-Bangabondhu-Techshohor

গত ৩০ মার্চ বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট ফ্লোরিডার লঞ্চ প্যাডে পৌঁছায়। সেখানে উৎক্ষেপণের প্রস্তুতি শুরু হয়ে গেছে। হচ্ছে স্যাটেলাইটটির নানা রকম পরীক্ষা-নিরীক্ষা।

বিটিআরসি চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদ বলেছেন, ইতোমধ্যে স্যাটেলাইটটির পরীক্ষা-নিরীক্ষা শুরু হয়েছে। সেটাও ঠিকঠাক চলছে বলে আমাদের কাছে খবর আছে। আমরা সবসময় এর সর্বশেষ পরিস্থিতির খোঁজ খবর রাখছি।

Symphony 2018

বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা বলছেন, আগামী কয়েক দিন এই পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলবে। তারপরেই জানা যাবে উৎক্ষেপণের চূড়ান্ত তারিখ। তবে সম্ভাব্য তারিখ ২৪ এপ্রিল বলা হলেও সেদিন হবে কিনা সেটা এখনো জানা যাচ্ছে না।

এর আগে বঙ্গবন্ধু স্যাটলাইটটির উৎক্ষেপণ তারিখ ২০১৭ সালের ডিসেম্বর, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি, পরে ৩০ মার্চ এবং ৫ এপ্রিল হতে পিছিয়েছে।

Bangabandhu-1 Satellite-TechShohor

মূলত নভেম্বরে ফ্লোরিডায় বন্যা এবং নতুন স্পেস শার্টল নির্মাণের জন্যেই কিছুটা বেশি সময় লাগল বলে জানান প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা।

স্যাটেলাইটি উৎক্ষেপণের পর গাজীপুরের গ্রাউন্ড স্টেশনের সঙ্গে সেটি সরাসরি সংযুক্ত করা হবে। তবে বাংলাদেশের ভূমি থেকে উপগ্রহটি নিয়ন্ত্রণের জন্য দুটি গ্রাউন্ড স্টেশন তৈরি করা হয়েছে। এর একটি গাজীপুরের জয়দেবপুর এবং অপরটি রাঙ্গামাটির বেতবুনিয়ায়।

বেতবুনিয়ার গ্রাউন্ড স্টেশনটি ব্যাকআপ স্টেশনে হবে। মূলত কাজ হবে জয়দেবপুরের স্টেশনেই।

বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটটি অরবিটে পৌঁছাতেই তিন সপ্তাহ লাগবে। অরবিটে পাঠানোর পরেও প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ফ্রান্সের থ্যালাস অ্যালেনিয়া স্পেস সেটি পর্যবেক্ষণ করবে। তবে সেই সঙ্গে বাংলাদেশের এই গ্রাউন্ড স্টেশনে তা পর্যবেক্ষণ করা হবে। 

ইমরান হোসেন মিলন

*

*

Related posts/