ফোরজির আগের মাসগুলোয় বাড়েনি ইন্টারনেট সংযোগ

প্রকাশঃ ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৮, ০৪:২৪ - আপডেটঃ ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০১৮, ১১:২৪

girluse-internet-techshohor
Symphony 2018

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : চলতি মাসেই দেশে ফোরজির মোবাইল ইন্টারনেটের যাত্রা শুরু হলেও তার ঠিক আগের মাসগুলোতে ইন্টারনেটের গ্রাহক বৃদ্ধির হার প্রায় থমকে গেছে।

বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের হিসাব বলছে, সর্বশেষ চার মাসে (অক্টোবর থেকে জানুয়ারি) দেশে নতুন ইন্টারনেট সংযোগ যুক্ত হয়েছে মাত্র ১৬ লাখ দুই হাজার। অথচ শুধু সেপ্টেম্বর মাসেই নতুন ইন্টারনেট গ্রাহক বেড়েছিল ২০ লাখ ৮৫ হাজার।

আগস্টে বেড়েছিল আরো বেশি, ২১ লাখ ১৮ হাজার। জুলাইয়ে সেটি ছিল ১৬ লাখ ৩৭ হাজার। তারও আগের মাসে এটি ছিল ১৩ লাখ ৩৪।

ইন্টারনেট সংযোগ বৃদ্ধির এই নেতিবাচক হার সম্পর্কে সুনির্দিষ্ট করে কেউ কিছুই বলতে পারছেন না।

বিটিআরসি বলছে, হতে পারে ফোরজির জন্যে অনেকই হয়তো অপেক্ষা করে ছিলেন। তবে ফোরজি ইন্টারনেট সংযোগ বৃদ্ধির ক্ষেত্রে নতুন মাত্রা আনবে সেটি বলা যায় নিশ্চিতেই। ফলে ফেব্রুয়ারি এবং তার পরের সময় থেকে আবার দেখা যাবে ইন্টারনেট সংযোগ বৃদ্ধির ক্ষেত্রে নতুন মাত্রা আসবে।

নিয়ন্ত্রণ সংস্থার হিসাব বলছে, ইন্টারনেট সংযোগের ক্ষেত্রে টেলিযোগাযোগ খাত এখন পুরোপুরি মোবাইল নির্ভর হয়ে পড়েছে। সর্বশেষ জানুয়ারিতে যে সংযোগ বেড়েছে তার পুরোটাই বৃদ্ধি পেয়েছে চারটি মোবাইল ফোন অপারেটরে।

অন্যদিকে আইএসপিদের সংযোগ এই মাসে এক হাজার বাড়লেও ওয়াইম্যাক্সের সংযোগ আবার এক হাজার কমে গেছে।

তাতে করে জানুয়ারির শেষে দেশে এখন মোট ইন্টারনেট সংযোগ আছে আট কোটি আট লাখ ২৯ হাজার। যার মধ্যে মোবাইলে ইন্টারনেট সংযোগই সাত কোটি ৫৩ লাখ ৯৬ হাজার।

ওয়াইম্যাক্সের মাধ্যমে ইন্টারনেট ব্যবহার করছে ৮৮ হাজার সংযোগে। আর আইএসপিদের সংযোগ আছে ৫৩ লাখ ৪৫ হাজার।

ইন্টারনেট সংযোগের মতো কার্যকর সিম সংখ্যা বৃদ্ধির ক্ষেত্রে কিন্তু স্লথগতি দেখা যাচ্ছে না, বরং এখানে আছে উর্ধ্বগতি।

জানুয়ারিতে দেশে মাত্র ১৮ লাখ ৮৬ হাজার নতুন সংযোগ যোগ হয়েছে চারটি মোবাইল অপারেটরের সঙ্গে। যার মধ্যে রবি একাই যোগ করেছে ১৩ লাখ ১৭ হাজার। গ্রামীণফোন যোগ করেছে ৫ লাখ ৩৯ হাজার।

এই মাসে সরকারি প্রতিষ্ঠান টেলিটক ৫৯ হাজার সংযোগ বাড়াতে পারলেও বাংলালিংকের উল্টো কমে গেছে ২৮ হাজার।

ইমরান হোসেন মিলন

*

*

সর্বাধিক পঠিত