ইমাজিন কাপে তিন বিভাগে লড়বে বাংলাদেশ

তুসিন আহমেদ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : মাইক্রোসফট আয়োজিত এবারের ইমাজিন কাপে ১৯০ দেশের প্রায় সাড়ে ১৬ লাখ শিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। বাংলাদেশ চতুর্থবারের মতো এ প্রতিযোগিতার গেইম, ইনোভেশন এবং ওয়ার্ল্ড সিটিজেনশিপ তিনটি বিভাগে প্রতিযোগিতায় অংশ নেবে।

বাংলাদেশের সেরা দলগুলো অনলাইন সেমিফাইনালে বিশ্ব সেরাদের সঙ্গে লড়বে। ফাইনালে স্থান পেলে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ানশিপে অংশ নিতে দেশ সেরারা উড়ে যাবেন যুক্তরাষ্ট্রে মাইক্রোসফটের প্রধান কার্যালয় সিয়াটল শহরে।

এদিকে দেশের সেরাদের খুঁজে বের করতে আগামী শনিবার রাজধানীর ইন্ডিপেনডেন্ট বিশ্ববিদ্যালয়ে ইমাজিন কাপ বাংলাদেশের জাতীয় চূড়ান্ত পর্ব অনুষ্ঠিত হবে।

এ আয়োজনে সহযোগিতা করছে মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোন। রোববার বিকেলে গুলশানে মাইক্রোসফট বাংলাদেশ অফিসে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়।

Microsoft _techshohor

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন মাইক্রোসফট বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার পুবুদু বাসনায়েকে, গ্রামীণফোনের হেড অফ কর্পোরেট কমিউনিকেশনস সৈয়দ তাহমীদ আজিজুল হক ও মাইক্রোসফট বাংলাদেশের টেক ইভাঞ্জেলিস্ট তানজিম সাকীব।

অনুষ্ঠানে পুবুদু বাসনায়েকে বলেন, “ইমাজিন কাপের মতো প্রতিযোগীতার ফলে বাংলাদেশের প্রতিভাবান তরুণরা আন্তজাতিক ক্ষেত্রে নিজেদের দক্ষতা তুলে ধরতে পারে। ফলে প্রযুক্তির আগ্রহ পাচ্ছে অনেক তরুণ।

সৈয়দ তাহমীদ বলেন, ‘ইন্টারনেট ফর অল’ কর্মসূচির মাধ্যমে গ্রামীণফোন সকল বাংলাদেশির জন্য ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগ করে দিতে চায়। সেই লক্ষে কাজ করছে গ্রামীণফোন। আগামীতে গ্রামীণফোন ইমাজিন কাপের মতো আয়োজনে সম্পৃক্ত থাকবে।

তানজিম সাকীব টেকশহরডটকমকে জানান, চলতি বছর ইমাজিন কাপে নিবন্ধন করা ১ হাজার ১০০ প্রতিযোগি ২৫০টি দলের মাধ্যমে কয়েকশ’ অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করে জমা দিয়েছেন।

গত ১২ এপ্রিল মাইক্রোসফটের অফিসে অনুষ্ঠিত সিলেকশন রাউন্ডে অংশ নিতে ৪২টি দলকে নির্বাচন করা হয়। অন্যান্য বারের চেয়ে এবার বেশি সংখ্যাক প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করেছে।

ইন্ডিপেনডেন্ট বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত ইমাজিন কাপ দর্শনাথী হিসাবে সবার জন্য উন্মুক্ত বলে তিনি জানান।

Related posts

*

*

Top