Maintance

স্পেকট্রামে ভ্যাট ১০ শতাংশ

প্রকাশঃ ১০:০২ পূর্বাহ্ন, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৮ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১২:৪৫ অপরাহ্ন, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৮

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : নিলামে স্পেকট্রাম বিক্রিতে ১০ শতাংশ ভ্যাটের সুপারিশ করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

ভ্যাটের নির্ধারিত হার ১৫ শতাংশ হলেও তা কমিয়ে নির্ধারণ করতে সম্প্রতি এনবিআর একটি প্রস্তাব অর্থ মন্ত্রণালয়ে অনুমোদনের জন্য পাঠিয়েছে।এ নিলাম থেকে সরকার সাড়ে তিনশ’ থেকে সাড়ে চারশ’ কোটি টাকা আয়ের পরিকল্পনা করছে।

এর আগে থ্রিজির স্পেকট্রাম নিলামের সময় অপারেটরগুলোর অনুরোধের প্রেক্ষিতে স্পেকট্রামের ওপর ভ্যাট নির্ধারণ করা হয়েছিল ৫ শতাংশ। তখন এনবিআর সাড়ে ৭ শতাংশ ভ্যাটের প্রস্তাব দিলেও শেষ পর্যন্ত তা আরও কমানোর পর ৫ শতাংশে দাঁড়ায়।

spectrum_techshohpr

মঙ্গলবার ঢাকা ক্লাবে অনুষ্ঠিত হচ্ছে স্পেকট্রামের এই নিলাম। এতে শুধু দুই অপারেটর বাংলালিংক ও গ্রামীণফোন অংশ নিচ্ছে।

রবি ও টেলিটক ফোরজি সেবা চালুর জন্য বাড়তি স্পেকট্রাম নেবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে।

তবে সবগুলো অপারেটরই আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি এক সঙ্গে ফোরজির লাইসেন্স পাবে। সেক্ষেত্রে রবি ও টেলিটক তাদের বিদ্যমান স্পেকট্রামেই ফোরজি সেবা দেবে।

অন্যদিকে বাংলালিংক ও গ্রামীণফোন বিদ্যমান স্পেকট্রাম এবং সঙ্গে নতুন স্পেকট্রাম দিয়ে ফোরজির সেবা দেবে।

তবে এর আগে সবগুলো অপারেটরকে প্রযুক্তি নিরপেক্ষতার সুবিধা নিতে হবে। বিদ্যমান প্রতি মেগাহার্ডজ স্পেকট্রামের জন্যে ৪০ লাখ ডলার প্রদান করে এই সুবিধা নেওয়া যাচ্ছে।

রবি ইতিমধ্যেই তাদের ফি পরিশোধ করে সুবিধাটা নিয়ে নিয়েছে। তবে লাইসেন্স পাওয়ার আগে তারা সেবা চালু করতে পারবে না।

এদিকে মঙ্গলবারের নিলামে সব মিলে ১৫ থেকে ২০ মেগাহার্ডজ স্পেকট্রাম বিক্রি হবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

এক্ষেত্রে ২১০০ ব্যান্ডে বাংলালিংক ৫ মেগাহার্ডজ নেবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। যার মূল্য সাড়ে ১৩ কোটি ডলার। ১০ শতাংশ হিসেবে এখান থেকে সরকার বাড়তি ভ্যাট পাবে এক কোটি ৩৫ লাখ ডলার।

অন্যদিকে ১৮০০ ব্যান্ডে গ্রামীণফোন ও বাংলালিংক মিলিয়ে আরো ১০ থেকে ১৫ মেগাহার্ডজ স্পেকট্রাম নেবে। যার মূল্য হবে ৩০ কোটি থেকে ৪৫ কোটি ডলার। সুতরাং এখান থেকেও সরকার ভ্যাট হিসেবে পাবে তিন থেকে সাড়ে চার কোটি ডলার।

ফলে ৮২ টাকা ডলার হিসেবে শুধু ভ্যাট হিসেবেই মঙ্গলবারের নিলাম থেকে সরকারের আয় হবে সাড়ে তিনশ কোটি থেকে সাড়ে চারশ কোটি টাকার মধ্যে।

ইমরান হোসেন মিলন

*

*

Related posts/