গুগল স্টোরে অ্যাপ নিবন্ধন জটিলতা সমাধানের উদ্যোগ

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : গুগল প্লে স্টোরে অ্যাপস রাখার ক্ষেত্রে অর্থ প্রদানের জটিলতা কাটানোর উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশি ডেভেলপারদের আর্থিক লেনদেন প্রক্রিয়া সহজ করার চেষ্টা চলছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে দিনব্যাপী জাতীয় বুট ক্যাম্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দেশীয় অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপারদের এ আশার কথা শোনান প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ ও জ্বালানি উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-এলাহী।

উপদেষ্টা বলেন, অ্যাপ স্টোরে রেজিস্ট্রেশনের জন্য অর্থ প্রদানের জটিলতা যত দ্রুতসম্ভব সমাধান করা হবে। আগামী সপ্তাহে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিবসহ বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের সঙ্গে আলোচনা করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

boot camp_techshohor

বুট ক্যাম্পে অংশগ্রহণকারীরা জানান, দেশী ডেভেলপাররা  শতশত অ্যাপস তৈরি করার পরও  তা সবার সামনে উপস্থাপন করতে পারছে না। জাতীয় পর্যায়ে তা করা হলেও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে একদম করা যাচ্ছে না।

ডেভেলপাররা বলেন, গুগল প্লে স্টোরে আপলোডের মাধ্যমে বিশ্ববাজারে উপস্থিত হওয়ার ক্ষেত্রে প্রধান সমস্যা হচ্ছে নিবন্ধনের জন্য অর্থ প্রদান করা।

জাতীয় পর্যায়ে মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন (অ্যাপ) উন্নয়নে সচেতনতা ও দক্ষতা বৃদ্ধির অংশ হিসাবে বিভাগীয় পর্যায়ে এ বুট ক্যাম্প কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়েছে।

শুক্রবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢাকা বিভাগের এ ক্যাম্প শুরুর মধ্য দিয়ে এ কর্মসূচী শুরু হয়েছে।

এরপর খুলনা বিভাগে ২ মে, সিলেটে ৪ মে, চট্টগ্রামে ৯ মে, রাজশাহীতে ১৬ মে, বরিশালে ২৩ মে এবং রংপুর ৩০ মে থেকে এ ক্যাম্প শুরু হবে।

এর আগে প্রথম ধাপে দেশব্যাপী অ্যাপস ডেভেলপমেন্ট কর্মশালার আয়োজন করা হয়। এসব কর্মশালায় ৫০ প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের মাধ্যমে ২ হাজার ৫৬ জন শিক্ষার্থীকে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন উন্নয়নের উপর প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের ব্যবস্থাপনায় এ কর্মসূচী পরিচালিত হচ্ছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে এমসিসি লিমিটেড।

রাজধানীর ক্যাম্পে প্রশিক্ষণ নেওয়া ডেভেলপার ছাড়াও দেশের চার শতাধিক নবীন অ্যাপস ডেভেলপার এ কর্মসূচীতে অংশ নিয়েছে।

কর্মশালায় অ্যাপস ডেভেলপমেন্টের উপর বিভিন্ন উচ্চতর কারিগরী বিষয়, গেইম ডেভেলপমেন্ট, মোবাইল অ্যাপ ব্যবসার উপায়, বিষয় ছাড়াও অ্যাপ্লিকেশনের ডেভেলপমেন্ট পর্যায়ে সুবিধা-অসুবিধা নিয়ে বিভিন্ন সেশন ওয়ার্কশপ অনুষ্ঠিত হয়।

বুট ক্যাম্পে দেশের সেরা মোবাইল অ্যাপ নির্মাতারাও উপস্থিত ছিলেন। অংশগ্রহণকারীরা তাদের পেশাগত অভিজ্ঞতা ভাগাভাগি করেন।

এ ছাড়া দিনব্যাপী বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের গ্রামীনফোন, সিম্ফোনি ও নোকিয়ার পক্ষ থেকে পুরস্কার দেওয়া হয়।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি সচিব মো. নজরুল ইসলাম খানের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় অনুষদের ডীন প্রফেসর রুবায়াত-উল-ইসলাম, গুগল বাংলাদেশের কান্ট্রি কনসালটেন্ট মনিরুল কবীর, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর ট্রেড অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্টের পরিচালক ড. আলতাফ জলিল, বিশ্বব্যাংকের লেভারেজিং আইসিটি প্রকল্পের কমিউনিকেশান কনসালটেন্ট অজিত কুমার সরকার এবং কর্মসূচী পরিচালক ও তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের উপপরিচালক  ড. মোহাম্মদ আবুল হাসান উপস্থিত ছিলেন।

এ কর্মসূচী বাস্তবায়নে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসেবে এমসিসি ও ইএটিএলের সঙ্গে আরও কাজ করছে বেসিস, মাইক্রোসফট, গ্রামীণফোন, রবি, টেলিটক, নোকিয়া, সিম্ফোনি, এসওএল কোয়েস্ট ও গুগল ডেভেলপার গ্রুপ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর ট্রেড অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট ও কিউবি।

– আল আমীন দেওয়ান

Related posts

*

*

Top