Maintance

স্যামসাংয়ের আয় বাড়িয়েছে মেমোরি চিপ

প্রকাশঃ ৮:২৩ পূর্বাহ্ন, ফেব্রুয়ারি ১, ২০১৮ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১০:৪২ পূর্বাহ্ন, ফেব্রুয়ারি ১, ২০১৮

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দক্ষিণ কোরিয় ইলেক্ট্রনিক জায়ান্ট স্যামসাং ২০১৭ সালে মুনাফা করেছে তিন হাজার ৯৩০ কোটি মার্কিন ডলার।

যা ২০১৬ সালের চেয়ে অন্তত ৮৫ দশমিক ৬ শতাংশ বেশি। মেমোরি চিপ ব্যবসায় জোর দেওয়ার পর তার কল্যাণেই মুনাফা এমন বেড়েছে।

এই সময়ে প্রতিষ্ঠানটি মোট পরিচালন আয় করেছে ৫ হাজার ২০০ কোটি মার্কিন ডলার।যা আগের বছরের চেয়ে ৮৩ শতাংশ বেশি বলে বুধবার এক বিবৃতিতে বলেছে স্যামসাং।

আর পরিচালন মুনাফা ছিল ৪ হাজার ৯০০ কোটি ডলার, যা আগের বছর থেকে বেড়েছে অন্তত ৮৩ দশমিক ৪ শতাংশ।

গত বছরের শেষ প্রান্তিকে বিশ্বের সবচেয়ে বড় এই চিপ নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটির খাতটি থেকে মুনাফা বেড়েছে অন্তত ৭২ দশমিক ৯ শতাংশ। যা আগের বছর থেকে বেড়ে হয়েছে ১১০০ কোটি ডলার।

প্রতিষ্ঠানটি কম্পোনেন্ট ব্যবসা থেকেই গত বছরের শেষ প্রান্তিকে অন্যতম আয় করেছে। বিশেষ করে চিপ তৈরির উইনিট থেকে আয় হয়েছে বেশি। ডিআরএএম, এনএএনডি মেমোরি চিপ দুটি কোম্পানির আয় ২০১৭ সালে বাড়িয়ে দিয়েছে।

স্যামসাং বলছে, গত বছর তারা উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন কিছু মেমোরি চেপের অর্ডার পেয়েছেন। যা তাদের আয়কে বাড়াতে সাহায্য করেছে।

এছাড়াও স্যামসাং সম্প্রতি স্মার্টফোনের ওএলইডি ডিসপ্লে তৈরিতেও জোর দিয়েছে। ফলে বেশকিছু স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান স্যমাসাংয়ের কাছ থেকে ওএলইডি কিনছে।

এছাড়াও স্যামসাং চেষ্টা করছে তাদের এলসিডি তৈরির ইউনিটটিকে নতুন করে গড়ে তুলতে।

তবে স্যামসাংয়ের আইটি এবং মোবাইল খাতে আগের চেয়ে কম আয় হয়েছে বলে রিপোর্টটি বলছে। কারণ হিসেবে স্যামসাং বলছে, মোবাইল ইউনিটে বড় ধরনের খরচ করতে হয় মার্কেটিং খাতে। ফলে সেখানে আয় আগের চেয়ে কিছুটা কমেছে।

তবে ২০১৮ সালে প্রতিষ্ঠানটি বেশকিছু নতুন পরিকল্পনা নিয়ে হাজির হয়েছে। যা তাদের আয়ের এমন ধারাকে ধরে রাখতে কাজ করবে বলে জানাচ্ছে স্যামসাং।

আইএএনএস অবলম্বনে ইমরান হোসেন মিলন

*

*

Related posts/