Maintance

ফোরজিতে নতুন অপারেটরের সুযোগ এখনও আছে : বিটিআরসি

প্রকাশঃ ১১:৩৫ অপরাহ্ন, জানুয়ারি ১৪, ২০১৮ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১:৪২ অপরাহ্ন, জানুয়ারি ১৫, ২০১৮

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : আবেদনের সময় পেরুলেও ফোরজিতে নতুন অপারেটরের সুযোগ রয়েছে বলে জানিয়েছেন বিটিআরসির চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ। তিনি জানান, মার্চের মধ্যেই এ সেবা চালু হবে।

রোববার ছিল লাইসেন্সের জন্য আবেদনের শেষ দিন। এদিন বন্ধ অপারেটর সিটিসেলসহ সেবায় থাকা চার অপারেটর নতুন প্রজন্মের এ সেবা দিতে আবেদন করে।

কোনো নতুন অপারেটর না পাওয়াকে কিভাবে দেখছেন? – এমন প্রশ্নের উত্তরে বিটিআরসির চেয়ারম্যান সাংবাদিকদের বলেন, বর্তমানে টেলিযোগাযোগ বাজার একটি পর্যায়ে চলে গেছে। নতুন কেউ আসলে হয়তো তেমন একটা সুবিধা করতে পারবে না। তারপরও নতুন কারও জন্য দরজা বন্ধ করতে চায় না কমিশন।

বিটিআরসি’র চেয়ারম্যান বলেন, শুরুতে ফোরজির জন্য দুই দেশের দুটি অপারেটর আগ্রহ প্রকাশ করেছিল। কিন্তু পরে গতকাল পর্যন্ত কাউকে আর পাওয়া যায়নি।

4g-2-techshohor

এর আগে ২০১৩ সালেও থ্রিজি সেবার সময় নতুন অপারেটর আসার সুযোগ রাখা হলে তখনও কোনো সাড়া মেলেনি।

এদিকে ২০১৬ সালের অক্টোবর থেকে সেবায় না থাকা সিটিসেল আবেদন করায় অনেকের মনেই প্রশ্ন হয়তো দেশের সবচেয়ে পুরোনো এই অপারেটরটির মাধ্যমেই নতুন বিনিয়োগকারী পাওয়া যাবে। এমনকি ওই বিনিয়োগকারী বিদেশীও হতে পারে।

২০১৩ সালে থ্রিজির জন্যেও সিটিসেল আবেদন করেও শেষ পর্যন্ত আর নিলামে অংশ নেয়নি।

এদিকে রাষ্ট্রায়ত্ত্ব অপারেটর টেলিটক লাইসেন্সের জন্যে আবেদন করলেও তারা স্পেকট্রামের নিলামে অংশ নেওয়ার জন্যে আবেদন করেনি।

অন্যদিকে সিটিসেলের যেহেতু থ্রিজি লাইসেন্স নেই সে কারণে কেবলমাত্র তাদের বিদ্যামান স্পেকট্রামের বাইরে নতুন করে স্পেকট্রাম কিনলেই কেবল তারা ফোরজির লাইসেন্স পাবে।

অনন্য ইসলাম

*

*

Related posts/