শপিংকে সহজ আনন্দদায়ক করতে চায় প্রিয়শপডটকম

মাত্র এক বছরে ই-কমার্সে বেশ পরিচিতি পেয়েছে প্রিয়শপডটকম। গ্রাহক সন্তুষ্টির মাধ্যমে কাজের স্বীকৃতিও মিলেছে দ্রুততর সময়ে। যানজটের নগরীতে শপিংকে আনন্দময় করতে তরুণ এক উদ্যোক্তার স্বপ্ন বিনির্মাণের কথা জানাচ্ছেন তুহিন মাহমুদ

ashikul alam khan-TechShohorছোটবেলা থেকে নতুন উদ্যোগ গ্রহণ ও নেতৃত্ব দিতে সবার আগে এগিয়ে এসেছেন আশিকুল আলম খান। কলেজে পড়ার সময় শখের বসে প্রোগ্রামিং শেখেন। বিবিএ প্রথম বর্ষে থাকতে বন্ধু ও পরে জীবনসঙ্গী দীপ্তির সঙ্গে মিলে তৈরি করেন স্টুডেন্ট-উইশডটকম নামের শিক্ষামূলক ওয়েবসাইট। ২০০৬ সালে এটির মাধ্যমে উদ্যাক্তা হওয়ার স্বপ্ন দেখা শুরু। ধীরে ধীরে গড়ে তোলেন একটি টিম। নিজেদের আরও সংগঠিত করতে ২০১০ সালে স্প্লেন্ডর আইটি নামে একটি পূর্ণাঙ্গ আইটি ফার্ম প্রতিষ্ঠা করেন। বেসিসের সদস্য পদও পান স্বল্প সময়ে।

নতুন এ উদ্যোগের পেছনে লেগে থাকার ফলস্বরূপ আউটসোর্সিংয়ে বেশ নাম কাড়েন আশিকুল। দেশের বেশ কয়েকটি আইটি প্রজেক্টও সফলতার সঙ্গে শেষ করেন। তবে এ সফলতায় গা ভাসিয়ে না দিয়ে ই-কমার্স ব্যবসায় নামার লক্ষ্যে কাজ চালিয়ে যান। এ খাতের ব্যবসার বিভিন্ন দিক নিয়ে নিজে যেমন শিখেছেন, তেমনি টিমের সবাইকে উৎসাহিত করেছেন ব্যবসা পরিচালরনার খুঁটিনাটি জানতেও। এরই ধারাবাহিকতায় ২০১৩ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি প্রিয়শপডটকমের যাত্রা শুরু করেন।

যেভাবে এ উদ্যোগ
২০০৭ সালে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী একজন বাঙালীর ই-কমার্স সাইট তৈরির কাজ পায় স্প্লেন্ডর আইটি। এটি করতে গিয়ে বাংলাদেশে একটি পূর্ণাঙ্গ অনলাইন শপিং সাইট শুরুর পরিকল্পনা মাথায় আসে আশিকুলের। হাজারো ব্যস্ততা এবং ঢাকা নগরীর অসহনীয় যানজটে যখন শপিং হয়ে উঠেছে দুর্লভ, তখন তার ইচ্ছা জাগে মানুষের দোরগোড়ায় সহজে পণ্য পৌঁছে দিতে। এ ভাবনাকেই পরে বাস্তবে রূপ দিতে পরিকল্পনা সাজান তিনি।

শুরুটা যেভাবে
২০০৭ সালে যখন এ পরিকল্পনা মাথায় আসে তখন এতো সময় ও সুযোগ ছিল না। নিজেকে আরও বেশি দক্ষ করে গড়ে তুলতে এ খাতের বিভিন্ন বিষয় শিখতে ও জানতে শুরু করেন। একইসঙ্গে একটি দক্ষ ও বিশ্বস্ত টিম গঠনে কাজ করেন। বিভিন্ন অনলাইন শপিং সাইটের যাত্রার কথা ও পরিচালনা পদ্ধতি বিশ্লেষণ করতে থাকেন। কোডিং, এসইও, এসএমএম সম্পর্কে জ্ঞান অর্জনে নিজেকে ব্যস্ত রাখেন। করতে থাকেন ফ্রিল্যান্সিং ও লোকাল প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন আইটি কাজ। যদিও শুরুটা করেছিলেন টিউশনের জমানো টাকা ও বোনদের থেকে ধার নিয়ে; তাই মূলধন ছিল স্বপ্ন। তবে উদ্যোগী এ তরুণের স্বপ্ন পূরণে তা বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারেনি।

Priyoshop launcing-TechShohor

এরই মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষাজীবন শেষে এবং ই-কমার্স নিয়ে জানাশোনার পর সিদ্ধান্ত নিলেন পুরোদমে কাজ শুরুর। অবশেষে গত বছরের ৭ ফেব্রুয়ারি ই-বাণিজ্য মেলায় উদ্বোধন করলেন প্রিয়শপডটকম।

প্রিয়শপডটকমে যা আছে
জনপ্রিয় পণ্য ও সেবা আকর্ষণীয় ছাড়ে ক্রেতার নাগালে পৌঁছে দিতে কাজ করছে প্রিয়শপ। এ সাইটের মাধ্যমে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য থেকে বিলাসবহুল পণ্যও ক্রয় করা যায়। বিশেষ ছাড়ে তৈরি পোশাক, টি-শার্ট, ফ্যাশন পণ্য, প্রসাধনী, ম্যানিব্যাগ, জুয়েলারি, বিভিন্ন উৎসবের গিফট আইটেম, অ্যান্টি-ভাইরাস, জুতা এবং বিভিন্ন সেবা পাওয়া যায়।

উদ্যোক্তাবান্ধব
প্রিয়শপের একটি ইউনিক ফিচার হলো- এটি ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা সহায়ক। এসএমই উদ্যোক্তাদের কোনো প্রকার সার্ভিস চার্জ ছাড়াই মার্চেন্ট পার্টনার হবার সুযোগ রয়েছে। একজন ক্ষুদ্র উদ্যোক্তার পক্ষে অনেক টাকা বিনিয়োগ করে বিভিন্ন জেলা শহরে ব্রাঞ্চ খোলা কিংবা পণ্য বিপনন করা সম্ভব নয়। তবে প্রিয়শপ কোনো বিনিয়োগ ছাড়া পণ্য সরবরাহে সহায়তা করে থাকে।

সবার আগে গ্রাহক সন্তুষ্টি
আশিকুল জানান, প্রিয়শপ সবসময় গ্রাহক সন্তুষ্টিকে প্রাধান্য দেয়। এ জন্য মানের সঙ্গে কখনও সমঝোতা করে না। উন্নতমানের পণ্য ও সেবা প্রদানে সর্বদা সর্তক থাকে।ল গ্রাহকদের সন্তুষ্টির জন্য রিপ্লেসমেন্ট গ্যারান্টিও দেওয়া হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, কোনো গ্রাহক মানসম্পন্ন পণ্য না পেলে তাকে পরিবর্তনের সুযোগ দেওয়া হয়। এসব বিষয়ে সকলের পরামর্শ ও মূল্যায়ন বিবেচনা করা হয়।

Priyoshop stall-TechShohor

পরিবার থেকে এখনও না
এখনও আশিকুলের পরিবার থেকে প্রশ্ন তোলা হয়, তিনি কেন চাকরি করছেন না। পরিবার ও আত্মীয়স্বজনদের বেশিরভাগ সরকারি কর্মকর্তা। তাই তার পক্ষে পরিবারকে বোঝানো এখনও কষ্টকর যে, তিনি একজন উদ্যোক্তা হতে চান। তবুও এ প্রতিবন্ধকতা জয় করে নিজের স্বপ্ন বাস্তবায়নে এগিয়ে যেতে চান। শ্রম ও মেধা কাজে লাগাতে চান নিজের উদ্যোগের জন্য, চাকরির পেছনে নয়।

বর্তমান পেক্ষাপট
বাংলাদেশের ই-কমার্স খাতের প্রেক্ষাপটে প্রিয়শপ বর্তমানে শীর্ষস্থানীয় অনলাইন শপিং সাইট। বৃহৎ পণ্য ক্যাটাগরি, ইউনিক পণ্য ও সেবা, দ্রুত পণ্য সরবারহের মাধ্যমে এটি বেশ পরিচিতি পেয়েছে। ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা থেকে ক্রমে এটির কলেবর বাড়ছে। কর্মসংস্থান হয়েছে ১৮ জনের। আশিকুল চান এটিকে আরও এগিয়ে নিতে। কাজের স্বীকৃতি হিসাবে ইতোমধ্যে ‘চাকরি খুঁজবো না, চাকরি দেব’ গ্রুপ থেকে উদ্যোক্তা সম্মাননা পেয়েছেন।

ashikul alam khan at uddokta hat-TechShohor

প্রচারণা
অনলাইন বেইজড মার্কেটিং এবং ব্র্যান্ডিং নিয়ে কাজ করছে প্রিয়শপ। এ ছাড়া বিদ্যমান গ্রাহকদের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নের মাধ্যমে ওয়ার্ড অফ মাউথ মার্কেটিংয়ে জোর দেওয়া হচ্ছে বলে জানান আশিকুল।

আগামীর পরিকল্পনা
আরও বেশি পণ্য ক্যাটাগরি এবং নতুন ও ইউনিক পণ্য ও সেবা দেওয়ার চেষ্টা করবে প্রিয়শপ। ব্র্যান্ডেড প্রোডাক্ট নিয়ে কাজ করার পাশাপাশি লোকাল ভেন্ডর উন্নয়নে কাজও করবে। এ ছাড়া ই-কমার্সের প্রতি মানুষের আস্থা অর্জনে কাজ করবে আশিকুলের দল।

বাংলাদেশে অনলাইন শপিংয়ে বিশ্বস্ত ও নির্ভরযোগ্য গন্তব্য হিসেবে প্রিয়শপকে দেখতে চান নবীন এ উদ্যোক্তা। শপিংকে কিভাবে আরও সহজ, নিরাপদ এবং আনন্দদায়ক করা যায় সেটিই রয়েছে আশিকুলের ভাবনায়। নিজের অর্জিত শিক্ষাকে কাজে লাগাতে চান তিনি।

priyoshop banner-TechShohor

নতুদের জন্য পরামর্শ
এখন প্রতিদিন নতুন নতুন ই-কমার্স সাইট আসছে। কিছুদিন পর কেউ কেউ হারিয়েও যাচ্ছেন। তাই নতুনদের জন্য আশিকুল প্রথমে ব্যবসার কাঠামো এবং ব্যবসা পরিচালনা সম্পর্কে ধারণা নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। বিভিন্ন কেস স্ট্যাডির পাশাপাশি দক্ষ ও বিশ্বস্ত টিম গড়ে তোলার কথা বলেন তিনি। হুজুগে সবাই ই-কমার্স ব্যবসায় নামার চেয়ে এর বিভিন্ন সহায়ক খাতে ব্যবসা উদ্যোগ নেওয়ার পরামর্শও তার। এসব উদ্যোগের মধ্যে রয়েছে প্রোডাক্ট ভেন্ডর, ফটোগ্রাফি, কুরিয়ার, ই-মার্কেটিং, কনটেন্ট রাইটিং, এসইও প্রভৃতি।

যোগাযোগ
PriyoShop.com
(an initiative of Splendor IT)
40 North Road, Vuter Goli
(Near Kalabagan Police Station)
Dhanmondi, Dhaka-1205
Phone: +8801926691281, +8801926691284
Fax: +88-02-9444010
Email: info@priyoshop.com
Website: www.priyoshop.com
Facebook: facebook.com/priyoshopping

Related posts

*

*

Top